ব্যাকলিংক কিভাবে করবেন ? ও গুগল নিউজ আবেদন করার সম্পুর্ণ বাংলা প্রসেস ২০২২

হ্যালো বন্ধুরা আসসালামুয়ালাইকুম আশা করি সকলে ভালোই আছেন আপনাদের মাঝে আরও একটি নতুন পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম আমাদের আজকে বিষয়টি হচ্ছে কিভাবে একটি ওয়েবসাইটে ভিজিটর বাড়ানো যায় এবং কিভাবে ওয়েবসাইট পোস্টগুলো গুগল সার্চ ইঞ্জিন সহ অর্গানিক ট্রাফিক আনা যায় খুব সহজে এছাড়াও কিভাবে আপনার পোস্ট আরও দ্রুত করবেন এই বিষয়গুলো নিয়ে কিন্তু আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করা হবে।

এর আগে আমাদের ওয়েবসাইটে একটি পোস্ট পাবলিসিটি করা হয়েছিল সেখানে আমরা দেখেছি কিভাবে দ্রুত ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট পোস্টগুলো আমরা ইন্ডিক্স করব আজকে আমরা দেখবো কিভাবে অন্যান্য ওয়েবসাইট গুলো খুব দ্রুত ইন্ডিক্স করা যায় ওয়াডপ্রেস সহ যেকোন ওয়েবসাইট কিন্তু আপনি খুব দ্রুত ইনস্ট্যান্ট ইন্ডিক্স করতে পারবেন।

আমাদের আজকের আর্টিকেল মেইন টপিক হচ্ছে কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর বৃদ্ধি করবেন এবং কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট খুব দ্রুত গুগোল ইন্ডেক্স করবেন এই বিষয়গুলো নিয়ে আশা করি আপনার ভালো লাগবে পোস্টটি কেননা আপনি যদি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন এবং আপনি যদি ওয়েব সাইটে কাজ করে থাকেন অবশ্যই আপনার এই পোস্টটি দেখা উচিত।

কিভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরী করবেন ?এখানে কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে যেগুলো আপনি যদি খুব ভালো ভাবে দেখে করতে পারেন আশা করি আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক খুব দ্রুত বেড়ে যাবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট গুলি কিন্তু খুব দ্রুত ইন্ডেক্স হয়ে যাবে গুগলে এবং আরো কিছু সোর্স মাধ্যমে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইট ইনডেক্স হয়ে যাবে যেমনটা অনেকেই নাম শুনেছেন কিভাবে গুগোল নিউজ ওয়েবসাইট এড করবেন এইগুলো কিন্তু আমাদের পোস্টে শেয়ার করা হবে।

তাহলে চলুন আমাদের আজকের পোস্ট এর বিস্তারিত দেখে নেয়া যাক এবং অবশ্যই পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন ও যে কাজগুলো আপনার করতে সমস্যা হবে সেগুলো অবশ্যই খুব ভালোভাবে আর্টিকেলে দেখে তারপর আপনার ওয়েবসাইটে করার চেষ্টা করবেন তাহলে আশাকরি আমি যে কাজগুলো করেছি আমার ওয়েবসাইটের জন্য আপনিও কিন্তু খুব সহজে আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে সেই কাজগুলো করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটের ট্রাফিক সোর্স বৃদ্ধি করার উপায়

এর আগে আমাদের পোস্টে আমরা আলোচনা করেছিলাম কিভাবে দ্রুত একটি পোস্ট গুগলে ইনডেক্স করা যায় এবং সেখানে কিন্তু শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট গুলো কার্যকারী হবে অর্থাৎ ইনস্ট্যান্ট ইন্ডিক্স প্লাগিনটি রয়েছে সেটি কিন্তু শুধুমাত্র ‌ ওয়ার্ডপ্রেস যে কোন ওয়েব সাইটে কাজ করবে তা ছাড়া অন্য কোন ওয়েবসাইটে কিন্তু এটি কাজ করবে না তো যদি আপনার একটি ব্লগার ওয়েবসাইট হয়ে থাকে অথবা প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইট হয়ে থাকে তাহলেও কিন্তু আমাদের আজকের পোষ্টের বিষয় গুলো আপনার কাজে লাগবে।

অর্থাৎ মোট কথা আপনার যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট হোক না কেন খুব দ্রুত কিন্তু এই কাজগুলো আপনি সম্পন্ন করতে পারবেন কিছু টিপস অবলম্বন করে যে টিপস গুলো আমি আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব আপনি যদি এই কাজগুলো অন্য কারো মাধ্যমে করেন এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার টাকা খরচ হবে অর্থাৎ এখানে ছোট একটি কাজ তো আপনি অন্য কারো দ্বারা করে নেন মিনিমাম আপনার ৫০০ থেকে 600 টাকা খরচ হতে পারে আপনি যেন নিজেই এই কাজগুলো করতে পারেন এজন্য আমি পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করব।

অবশ্যই এই স্ক্রীনশট গুলা দেখে নিজে করার চেষ্টা করবেন এবং কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন কোন বিষয়টি আপনার বুঝতে সমস্যা হয়েছে সাথে সাথে কিন্তু সেটার সমাধান আমি দিয়ে দেব এবং ভালভাবে বোঝার জন্য আমি সম্পূর্ণ কাজ আর স্ক্রিনশট আপনাদের সাথে শেয়ার করব যেন আপনি খুব সহজে এই স্ক্রীনশট গুলা দেখে আপনার ওয়েবসাইটে করতে পারেন।

একটি ওয়েবসাইটের ট্রাফিক সোর্স বাড়ানোর বিশেষ কয়েকটি উপায় রয়েছে যে উপায়গুলো অবলম্বন করে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের খুব দ্রুত ট্রাফিক বৃদ্ধি করতে পারবেন সাধারণত ট্রাফিক বৃদ্ধি করার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে কোয়ালিটি ফোন কনটেন্ট তৈরি করা এবং খুব ভালোভাবে ওয়েবসাইটের এসইও করা তাহলে কিন্তু খুব দ্রুত ভিজিটর বৃদ্ধি পাবে।

এসইও কিন্তু অনেক ধরনের রয়েছে যেগুলো করার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটি সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে খুব দ্রুত ডিজিটর বৃদ্ধি পাবে গুরুত্বপূর্ণ এসইও মধ্যে হচ্ছে কিন্তু অফ পেজ এসইও টি খুবি ভূমিকা রাখে এটি সম্পূর্ণভাবে ওয়েবসাইটের বাহিরে করতে হয় অফ পেজ এসইও এটি সম্পূর্ণ ওয়েবসাইটের বাহিরে করতে হবে অর্থাৎ ওয়েবসাইট এর ভিতরে কিন্তু অফ পেজ এসইও করা যায় না।

একটি ওয়েবসাইটের জন্য অফপেজ এসইও খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এবং অফ পেজ এসইও এর ব্যাক লিঙ্ক হচ্ছে সবচেয়ে বড় ভূমিকা আপনি যদি গুগলে সার্চ করেন কিভাবে ওয়েবসাইট সুন্দরভাবে এসইও করবো তাহলে দেখতে পারবেন ব্যাকলিংক কিন্তু সেখানে আসবে অর্থাৎ ব্যাংলিংকয়ের মাধ্যমে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি সার্চ ইঞ্জিন গুলোকে খুব দ্রুত রেংক করাতে পারবেন।

ব্যাকলিংক কি এবং কিসের জন্য ব্যাকলিংক করতে হবে

ব্যাকলিংক মানে হচ্ছে অন্য একটি ওয়েবসাইটের সাথে আপনার ওয়েবসাইটের লিঙ্ক করা অর্থাৎ অন্য একটি ওয়েবসাইটের আর্টিকেল থেকে আপনার ওয়েবসাইটের যেকোনো একটি আর্টিকেল বা ওয়েবসাইটের লিংক যুক্ত করা আমরা হয়তো বিভিন্ন সময়ে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরও দেখতে পায় সেখানে কোন লিংক থাকলে সেটি ক্লিক করার পর অন্য একটি ওয়েবসাইটে চলে যাচ্ছে সেটি কিন্তু একটি ব্যাকলিংক এবং এই লিংকটি কিন্তু যুক্ত করা হয়েছে পোস্টের ভিতরে।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর অন্যতম একটি উপায় হচ্ছে ব্যাকলিংক যার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটি খুব দ্রুত গুগলে রেংক করাতে পারবেন এবং আপনার ওয়েবসাইটটির কোনো পোস্ট যখন রেঙ্ক করবে তখন কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর খুব দ্রুত বৃদ্ধি পাবে।

আপনি যদি ওয়েব সাইট নিয়ে কাজ করেন অথবা কাজ করতে চান তাহলে অবশ্যই কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর প্রয়োজন হবে তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইট থেকে আপনি ইনকাম করতে পারবেন যেকোন উপায়ে যদি আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর না থাকে এক্ষেত্রে কিন্তু কোনভাবে আপনি ইনকাম করতে পারবেন না আপনার সেই ওয়েবসাইট থাকে।

অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর প্রয়োজন হবে এবং এর জন্য আপনাকে করতে হবে এসইও এবং কোয়ালিটিফুল আর্টিকেল অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে যা আর্টিকেলগুলো পাবলিসিটি করবেন সেই গুলো অবশ্যয় কোয়ালিটিফুল হতে হবে এবং ভালো মানের মান সম্মত হতে হবে তাহলে কিন্তু সেই পোস্টগুলি মানুষ করবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে খুব দ্রুত রেঙ্ক করবে।

তো এখন প্রশ্ন আসতে পারে আপনার যে ব্যাকলিংক কিসের জন্য করব এবং এর জন্য আমাদের বর্তমানে কি কি লাভ হবে এটির উত্তর আমি দিয়ে দিচ্ছি আশা করি উত্তর দেখে আপনি চেষ্টা করবেন ব্যাকলিংক তৈরি করার জন্য এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ভালো হবে ওয়েবসাইট ট্রাফিক বৃদ্ধি করতে পারবেন এবং ওয়েবসাইটটি খুব ভালোভাবে করতে রেঙ্ক পারবেন।

১. ডিজিটর বৃদ্ধি করার জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করা।

আপনি যদি ভাল মানের ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারেন এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক কিছুটা বাড়বে অর্থাৎ আপনি যে ওয়েবসাইট থেকে একটি ব্যাকলিংক তৈরী করবেন যদি সেই ওয়েবসাইটটিতে প্রচুর পরিমাণে ডিজিটর থাকে এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে কিছু কিছু ডিজিটর আসতে পারে অবশ্যই কিন্তু সেই ওয়েবসাইটটিতে প্রচুর পরিমাণে ডিজিটর থাকা লাগবে তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের ডিজিটাল আসবে সেই ওয়েবসাইট থেকে।

যেমন ধরুন বাংলাদেশের অন্যতম একটি সেরা টেক রিলেটেড ওয়েবসাইট কিন্তু ট্রিকবিডি যেখানে হাজার হাজার পোস্ট রয়েছে বিভিন্ন বিষয়ের উপর আপনি যদি সেখান থেকে একটি ব্যাকলিংক তৈরি করেন এক্ষেত্রে কিন্তু আপনার এই পোস্টটি অনেকে দেখবে এবং সেখানে যে লিংক থাকবে যদি আপনি লিংকে খুব চমৎকার ভাবে সাজিয়ে দিতে পারেন তাহলেও কিন্তু মানুষ আপনার লিংকে ক্লিক করে আপনার ওয়েবসাইটে থাকা পোস্ট টি ও পড়বে।

ধরুন আপনি ট্রিকবিডিতে একটি পোস্ট করলেন ” কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করব ” তাহলে এই সম্পর্কিত যেকোন একটি লিংক আপনাকে ব্যাকলিংক হিসেবে তৈরি করতে হবে অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে যদি এই রিলেটেড কোন পোস্ট থাকে তাহলে চেষ্টা করবেন সেই পোষ্টের সাথে আপনার ব্যাকলিংক তৈরি করার জন্য। এক্ষেত্রে কিন্তু মানুষ আপনার পোস্টটি ক্লিক করে দেখবে।

আর যদি আপনি অন্য কোন টপিকে পোস্ট আপনার ব্যাকলিংক তৈরি করেন এক্ষেত্রে কিন্তু লিঙ্ক ক্লিক করার সম্ভাবনা খুবই কম কেননা সে আপনার পোস্ট থাকা বিষয়টি জানার জন্য ট্রিকবিডি তে প্রবেশ করেছে যখন আপনার পোস্টের ভিতরে অন্য একটি লিংক ব্যাকলিংক হিসেবে তৈরি করবেন এবং সেটি অন্য কোনো বিশেষ সম্পর্ক তো থাকবে তখন কিন্তু মানুষ এই লিংকটিতে ক্লিক করবেন না।

আপনি যদি ট্রিকবিডি থেকে একটি লিঙ্ক তৈরি করেন মানে একটি ব্যাকলিংক যদি তৈরি করেন এবং খুব ভালোভাবে যদি ব্যাকলিংক কি বসাতে পারেন এক্ষেত্রে দেখবেন আপনার ওয়েবসাইটে প্রতিদিন 100 থেকে 200 ট্রাফিক আসতেছে শুধুমাত্র ট্রিকবিডি থেকে এটি কিন্তু খুবই ভাল মাধ্যম ব্যাকলিংক আমি কিন্তু সাধারণ একটি উদাহরণ দিলাম আপনি চাইলে ট্রিকবিডি থেকে ব্যাকলিংক করতে পারেন।

২. ওয়েবসাইটে রেঙ্ক করানোর জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করুন

আপনার ওয়েবসাইটটি সার্চ ইঞ্জিনে খুব ভালোভাবে রেংক করানোর জন্য আপনাকে ব্যাকলিংক তৈরী করতে হবে যখন আপনি ভালো মানের ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করবেন তখন কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে থাকা পোস্টগুলো খুব দ্রুত গুগলে রেংক করবে। কেননা যখন অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমাণে ভিজিটর আসবে তখন কিন্তু গুগোল লক্ষ করবে।

এবং আপনার ওয়েবসাইটে থাকা পোস্ট গুলি গুগল প্রাধান্য দিবে যার কারণে খুব দ্রুত কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি গুগলের রেঙ্ক করা শুরু হবে বিশেষ করে আপনি যে পোস্ট গুলির জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করবেন অন্য কোন ওয়েবসাইটে সেই পোস্ট কিন্তু আরও দ্রুত গুগলে রেংক করবে। সেটি যেকোনো ধরনের পোস্ট হোক না কেন খুব দ্রুত আপনার সেই পোস্ট থেকে আপনি অর্গানিক ট্রাফিক নিতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইট গুগলে ভালোভাবে রেঙ্ক করার জন্য কিন্তু ব্যাকলিংক খুব ভালো এবং খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে অবশ্যই চেষ্টা করবেন আপনার ওয়েবসাইটের সাথে অন্যান্য ওয়েব সাইটের ব্যাকলিংক তৈরি করা এক্ষেত্রে আপনার লাভ হবে এবং আপনি যে ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরি করবেন তাদেরও লাভ হবে সেটি আমি নিচে বলে দিচ্ছি।

৩. কিভাবে ব্যাকলিংক তৈরি করবেন।

উপরে আলোচনা করলাম ব্যাকলিংক এর ভূমিকা সমূহ নিয়ে অনেকেই হয়তো বলতে পারেন যে তাহলে কোথায় থেকে আমি ব্যাকলিংক তৈরি করব এখন আমি বলে দিচ্ছি আপনি কিভাবে খুব সহজে ব্যাকলিংক তৈরী করবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্য সেরা কিছু মাধ্যম রয়েছে যেগুলো অবলম্বন করে কিন্তু আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য খুব সহজেই ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

সাধারণত আপনাকে কিন্তু কেউ একদম ফ্রিতে ব্যাকলিংক দিবে না অর্থাৎ আপনি কিন্তু অন্য কোন ওয়েবসাইট থেকে কোনপ্রকার পরিশ্রম ছাড়াই একটি ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারবেন না অবশ্যই একটি ব্যাকলিংক নেওয়ার জন্য আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে অর্থাৎ তাদের কিছু কাজ করে দিলে কিন্তু আপনাকে তারা একটি ব্যাকলিংক দিয়ে দিবে।

বিভিন্ন ধরনের মাধ্যম রয়েছে ব্যাকলিংক করার যেমন ধরুন অন্যের ওয়েবসাইটে পোস্ট করে ব্যাকলিংক আরও বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে যেগুলো অবলম্বন করে কিন্তু আপনি সহজেই অন্য্ ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

৪. ব্যাকলিংক তৈরি করার ওয়েবসাইট।

আপনি কিন্তু ব্যাকলিংক তৈরি করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পারেন অর্থাৎ যেকোন ধরনের ওয়েবসাইট থেকে কিন্তু আপনি ব্যাকলিংক নিতে পারেন তবে এখানে বিশেষ কয়েকটি বিষয়ের উপর আপনাকে গুরুত্ব দিতে হবে ব্যাকলিংক নেয়ার আগে তা না হলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

যেমন ধরুন আপনাকে ব্যাকলিংক তৈরি করার আগে জানতে হবে সেই ওয়েবসাইটের স্প্যাম সোর্স কত হয়েছে সাধারণত একটি ওয়েবসাইটের স্পাম সোর্স থাকে ১% যদি সে ওয়েবসাইটটি কোন প্রকার অবৈধ কাজ করে তাহলে কিন্তু সেই ওয়েবসাইটের স্পাম সোর্সস বেড়ে যায় এবং স্পনসর্স বেড়ে গেলে সেই ওয়েবসাইট এর সকল ধরনের কাজ আস্তে আস্তে নষ্ট বা বন্ধ হয়ে যায় যেমন ধরুন ওয়েবসাইট রেঙ্ক থেকে বিরত থাকবে।

অবশ্যই ব্যাকলিংক নেয়ার আগে আপনি সেই ওয়েবসাইট সম্পর্কে চেক করে নিবেন যে এই ওয়েবসাইটের বর্তমানে স্পাম সোর্স কত রয়েছে।

৫. ব্লগ ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করুন।

বিভিন্ন ধরনের ব্লগ ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো থেকে কিন্তু আপনি খুব সহজে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন আপনাকে এখানে খুব বেশি কাজ করতে হবে না খুব সহজেই কিন্তু এখান থেকে আপনি ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটের সম্পর্কিত এরকম পোস্ট আপনি যেকোনো একটি ব্লগ ওয়েবসাইটে খুঁজে বের করবেন এবং সেখানে দেখতে পারবেন কমেন্ট নামের একটি সেকশন রয়েছে সেখানে কিন্তু আপনি আপনার ওয়েবসাইটের লিংক কমেন্ট করতে পারেন এক্ষেত্রে কিন্তু একটি ব্যাকলিংক তৈরী হয়ে যাবে।

অনেক ওয়েবসাইটে দেখা যায় কমেন্ট করার জন্য আমাদেরকে ওয়েবসাইট নামের একটি অপশন দেওয়া হয় সেখানে চাইলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের লিংক অথবা আপনি সুন্দর একটি কমেন্ট করে সেই রিলেটেড একটি লিংক কমেন্ট করতে পারেন অর্থাৎ অবশ্যই ব্লগ ওয়েবসাইটের পোষ্টের সাথে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট একই ক্যাটাগরীর হতে হবে।

তাহলে কিন্তু সেটি সুন্দর এবং কোয়ালিটি ব্যাকলিংক হিসেবে গণ্য হবে যদি আপনি সাধারনভাবে আপনার ওয়েবসাইটের লিংক দেন তাহলে সেখানে ওয়েবসাইট নামে একটি অপশন রয়েছে সেখানে লিংকটি দিতে পারেন অথবা কমেন্ট বক্সে আপনার ওয়েবসাইটের লিংক দিতে পারেন।

যাকে বলা হয় কমেন্ট ব্যাকলিংক তবে এখানে কিছুটা মন্দ দিক রয়েছে সেটি হচ্ছে কমেন্ট ব্যাক লিঙ্ক গুলো মূলত বেশিরভাগ সময় No Follow হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে বর্তমানে এটি খুব বেশি মানুষ করে না কেননা এখন আরও বিভিন্ন ধরনের মাধ্যম রয়েছে যেগুলো তারা কিন্তু খুব সহজে ব্যাকলিংক তৈরি করা যায় তারপরও আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আপনি করতে পারেন কমেন্ট ব্যাকলিংক।

৬.QNA বা প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করুন।

ব্যাকলিংক তৈরী করুন অন্যতম একটি মাধ্যম হচ্ছে প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইট যে গুলোর মাধ্যমে আপনি কিন্তু খুব সহজে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে এবং এটি কিন্তু খুব সহজ কোন প্রকার কাজ ছাড়াই কিন্তু আপনি একটি ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

এর জন্য আপনাকে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন উত্তর ওয়েবসাইট এর সাথে যুক্ত হতে হবে অনেক ধরনের প্রশ্ন উত্তর ওয়েবসাইট বর্তমানে আপনি দেখতে পারবেন চেষ্টা করবেন সকল প্রশ্ন উত্তর ওয়েবসাইটে যুক্ত হওয়ার জন্য তাহলে কিন্তু আপনি খুব সহজে প্রতিদিন ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

অনেক সময় অনেক ধরনের প্রশ্ন করে থাকে মূলত প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইটগুলোতে যদি আপনার ওয়েবসাইটে থাকে কোন পোস্ট সম্পর্কিত কোন প্রকার প্রশ্ন কেউ ওয়েবসাইটে করে তাহলে কিন্তু আপনি সেখানে কমেন্ট বক্সে গিয়ে আপনার ওয়েবসাইটে থাকা পোষ্টের লিঙ্ক কমেন্ট করে জানিয়ে দিতে পারেন যে এখানে ক্লিক করে দেখে নিন আপনার প্রশ্নের সমস্ত উত্তর।

এইভাবে কিন্তু আপনি খুব সহজে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইট থেকে এবং এটি কিন্তু অনেক আগে থেকে মানুষ করতেছে প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইট থেকে নিজের ওয়েবসাইটের জন্য ব্যাকলিংক তৈরি।

৭. Guest posting গেস্ট পোস্ট করে ব্যাকলিংক তৈরী করুন।

বর্তমান সময়ে ব্যাকলিংক তৈরী করা সবচেয়ে সেরা মাধ্যম কিন্তু এটি এটির মাধ্যমে আপনি সবচেয়ে ভালো ভাবে একটি ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন বর্তমান সময়ে আপনি যদি লক্ষ্য করেন তাহলে দেখবেন বাংলাদেশের বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করা হচ্ছে যারা কিন্তু বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটে গেস্ট পোস্ট করে তাদের ওয়েবসাইটের রেঙ্ক নিয়ে নিচ্ছে।

অনেক ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে যে ওয়েবসাইটগুলোতে সাধারন মানুষ পোস্ট করে ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারবে খুব সহজে এবং একটি পোষ্টের সর্বোচ্চ দুই থেকে তিনটি লিংক ব্যবহার করতে পারবে অর্থাৎ একটি পোস্টে দুই থেকে তিনটি ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন।

এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে সেই ওয়েবসাইটের কমিউনিটির উপর প্রতিটি ওয়েবসাইটের কমিউনিটি হয়তোবা একনোয় তো আপনি কিন্তু অন্য ওয়েবসাইটে পোস্ট করে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন ওয়েবসাইটের রিলেটেড গ্রুপ যেগুলো রয়েছে সেখানে যদি আপনি পোস্ট করেন যে আমি ব্যাক লিঙ্ক নিতে চাই গেস্ট পোস্ট করে।

তাহলে দেখবেন অনেকেই গেস্ট পোস্টের মাধ্যমে ব্যাকলিংক দিতে চাইবে তো আপনি গেস্ট পোস্ট করে কিন্তু ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট থেকে এটি সবচেয়ে সহজ মাধ্যম এখন আমি নিজেও কিন্তু বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটে পোস্ট করে সেখান থেকে আমাদের জন্য ব্যাকলিংক তৈরী করে থাকি।

৮. ব্যাকলিংক তৈরি করার আগে অবশ্যই এটি দেখে নিবেন।

যেকোনো ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরি করার আগে অবশ্যই দেখে নিবেন যে সেই ওয়েবসাইট এর DA & PA কত কেননা যদি এটি একদম কম হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু সেই ব্যাক লিংকটি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য বেশি ভালো কাজ করতে পারবে না যখন একটি ওয়েবসাইটের DA বেশি থাকবে তখন আপনি সেই ওয়েবসাইট থেকে নিশ্চিন্তে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারবেন এবং আপনার ব্যাকলিংক টি সম্পূর্ণভাবে কাজ করবে।

আর যদি আপনার ওয়েবসাইট থেকে অর্থাৎ যে ওয়েবসাইট থেকে আপনি একটি ব্যাকলিংক তৈরী করবেন সে ওয়েবসাইটের DA যদি একদম কম থাকে তাহলে কিন্তু খুব বেশি গুরুত্ব থাকবে না সেই ব্যাকলিংকের জন্য আর একটি কথা না বললেই নয় ওয়েবসাইটের DA বৃদ্ধি হয়ে থাকে ব্যাকলিংক এর উপর আপনার ওয়েবসাইটে যত বেশি ব্যাকলিংক তৈরি করবেন এবং কোয়ালিটি ব্যাকলিংক আপনার ওয়েবসাইট কিন্তু তত DA বাড়তে থাকবে।

অবশ্যই চেষ্টা করবেন যে ওয়েবসাইটে বেশি রয়েছে সেই ওয়েবসাইট থেকে ব্যাক লিঙ্ক করার জন্য এ ক্ষেত্রে কিন্তু আপনার ব্যাকলিংক কি খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবে আশা করি বুঝতে পেরেছেন কিভাবে ব্যাকলিংক তৈরী করবেন এবং কোথা থেকে ব্যাকলিংক তৈরি করবেন।

তো এখন আমরা দেখে নেবো ওয়েবসাইটে কিভাবে আপনি গুগল নিউজ এপ্লাই করবেন যার মাধ্যমে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট খুব দ্রুত ইন্ডিক্স হয়ে যাবে গুগলে খুব সহজ একটি মাধ্যম ওয়েবসাইটের পোস্ট দ্রুত গুগোলে শো করানোর জন্য।

Google News. গুগল নিউজ কি এবং কিভাবে গুগোল নিউজ থেকে ডিজিটর আনবেন

গুগলের জিমেইল সার্চ ইঞ্জিনটি রয়েছে তাকে বলা হয় google.com এখানে কিন্তু যে কোন কিছু ফলাফল পাওয়া যায় আপনি যে কোন কিছু সার্চ করে দেখেন সেটির কিন্তু যথাযথ উত্তর পেয়ে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সার্চইঞ্জিন হচ্ছে গুগল যেখানে যে কোন প্রশ্নের উত্তর সহজে পাওয়া যায় সেরকম ভাবে গোপালের আরো একটি নিউজ সেকশন রয়েছে যার মাধ্যমে কিন্তু আপনি আপনার ওয়েবসাইট আরো দ্রুত আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনতে পারবেন।

বাংলাদেশের অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো আমরা সাধারণত গুগোল এ প্রবেশ করার পর অটোমেটিক ভাবে দেখতে পাই এই বিষয়ে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিভাবে এইগুলো অটোমেটিকভাবে গুগোল আনা যায় আপনি চাইলে কিন্তু পারবেন আপনার ওয়েবসাইটটি অটোমেটিকভাবে গুগোল অর্থাৎ গুগলে যখন আমরা প্রবেশ করি তখন দেখতে পারি বিভিন্ন ধরনের নিউজ সেখানে চাইলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের পোস্ট গুলি দেখাতে পারেন।

আমাদের বাংলাদেশ অনেক ধরনের পত্রিকা রয়েছে যেমন বাংলাদেশের নামকরা পত্রিকার নাম হচ্ছে প্রথম আলো তাদের নিউজ গুলো আমরা অনলাইনে হোক অথবা অফলাইন হোক দেখতে পারি সেই রকম ভাবে গুগোল নিউজ কিন্তু আপনি সকল ধরনের নিউজ দেখতে পারবেন এছাড়াও এখানে কিন্তু সকল ধরনের ওয়েবসাইট সাবমিট করতে পারবেন এবং ভিজিটর আনতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটটি গুগোল নিউজ শো করানোর জন্য অবশ্যই আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটটি গুগোল নিউজ এ সাবমিট করতে হবে তাহলে কিন্তু সেখানে আপনার ওয়েবসাইটটি দেখাতে পারবেন এবং এখান থেকে কিন্তু ট্রাফিক আনতে পারবেন খুব সহজে।

আপনার কোন ওয়েবসাইটের পোস্ট যদি দ্রুত ইন্ডিক্স না হয় তাহলে আপনি গুগোল নিউজ লাইভ করে নিতে পারেন আপনার ওয়েবসাইটে এক্ষেত্রে কিন্তু পোস্ট করা মাত্র আপনার পোস্টটি গুগলে দেখতে পারবেন সেটি যেকোন ওয়েবসাইট হোক না কেন ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট হয়তো অনেক ধরনের ফিউচার রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে খুব দ্রুত পোস্ট ইন্ডিক্স করা যায় কিন্তু অন্যান্য যেমন ব্লগার প্রশ্ন-উত্তর ওয়েবসাইটগুলোতে কিছুটা ব্যতিক্রম।

খুব দ্রুত আমরা অনেকেই পারি নাই এই ওয়েবসাইটগুলো গুগোল শো করানোর জন্য যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে গুগোল নিউজ ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু খুব দ্রুত পোস্ট করলে গুগলে দেখা যাবে যেটি আমি সকল ওয়েবসাইটে ব্যবহার করে থাকি এবং এটি কিন্তু যে কোন ওয়েব সাইটে ব্যবহার করতে পারবেন এবং কিভাবে ব্যবহার করবেন এইগুলো প্রসেস আমি স্ক্রিনশট এর মাধ্যমে দেখিয়ে দেব।

কিভাবে গুগোল নিউজ থেকে ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনা যায় এর জন্য অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটে কোয়ালিটি পোস্ট করতে হবে যেন পোস্টগুলি গুগোল নিউজে ভালোভাবে রেঙ্ক করে তাহলে কিন্তু আপনি গুগোল নিউজ থেকে ভিজিটর আনতে পারবেন।

বিশেষ করে আপনার ওয়েবসাইটে পোস্ট গুলি যদি ইংরেজি ভাষায় হয় তাহলে কিন্তু গুগল নিউজ থেকে ডিজিটর আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

অবশ্যই আপনার কন্টেন্টগুলি কোয়ালিটি হতে হবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে খুব ভালো পরিমাণে রেঙ্কে থাকতে হবে গুগল তাহলে কিন্তু গুগোল নিউজ থেকে আপনি ভিজিটর আনতে পারবেন খুব সহজে এবং নিয়মিত পোস্ট করতে হবে ওয়েবসাইটে প্রতিদিন মিনিমাম একটি হলো পোস্ট করতে হবে তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে আপডেট থাকবে এবং এই ওয়েবসাইটটি গুগোল ভালো প্রাধান্য দিবে।

তো এখন দেখাবো কিভাবে আপনি আপনার ওয়েবসাইটটি গুগোল নিউজ এ এপ্লাই করবেন সম্পূর্ণ প্রসেসটি আমি স্ক্রিনশট এর মাধ্যমে দেখিয়ে দেবো যাতে আপনার বুঝতে সহজ হয় এবং যখন আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে গুগোল নিউজ আবেদন করবেন অবশ্যই আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে স্ক্রীনশট গুলো দেখে তারপর কিন্তু গুগোল নিউজ এর জন্য আবেদন করবেন।

তাহলে আশাকরি কোন প্রকার সমস্যা হবে না খুব সহজে আপনার ওয়েবসাইটটি গুগোল নিউজ এপ্লাই করতে পারবেন সঠিক ভাবে তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

কিভাবে গুগল নিউজ ওয়েবসাইটের জন্য এপ্লাই / আবেদন করবেন।

মোবাইল ফোন দিয়ে এবং সকল ধরনের ডিভাইস দিয়ে কিন্তু আপনি গুগল নিউজের জন্য আপনার ওয়েবসাইট আবেদন করতে পারবেন খুব সহজে এবং সম্পূর্ন প্রসেস আপনাদের সাথে শেয়ার করব যেন আপনি খুব সহজেই বুঝতে পারেন গুগোল নিউজ আবেদন করতে আপনার কি কি প্রয়োজন হবে সেগুলো আগে বলেনি আশা করি এই গুলো আপনার রয়েছে নতুন করে কোন কিছু করতে হবে না।

অনেকের হয়তো প্রশ্ন থাকতে পারে গুগোল নিউজ আবেদন করতে কি কি লাগে ?উত্তর হচ্ছে গুগোল নিউজ আবেদন করার জন্য আপনার লাগবে একটি ইমেইল একাউন্ট যার মাধ্যমে আপনাকে গুগল পাবলিশার লগইন করতে হবে এবং তারপর কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আপনার আরও একটি বাহিরের জিনিস প্রয়োজন হবে সেটি হচ্ছে একটি লোগো অর্থাৎ গুগোল পাবলিশার এখানে কিন্তু আপনাকে একটি লোগো সাবমিট করতে হবে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য সেটি আমিন নিচে দেখিয়ে দেব step-by-step কিভাবে আপনি লোগোটি তৈরি করবেন ও সাবমিট করবেন বিস্তারিত।

আপনি সর্বপ্রথম গুগলে গিয়ে সার্চ করবেন ” Google publisher “এটি যদি আপনি গুগলে সার্চ করেন তাহলে সর্বপ্রথম যে রেজাল্ট দেখতে পারবেন এর রেজাল্টটা ক্লিক করবেন তাহলে কিন্তু আপনি গুগল পাবলিশার নিউজ পেয়ে যাবেন।

যেখানে আমাদের ওয়েবসাইটটি আবেদন করতে হবে গুগল নিউজের জন্য তো আপনার যদি মোবাইল ফোন হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে সর্বপ্রথম একটি কাজ করে নিতে হবে অবশ্যই এটি ছাড়া কিন্তু আপনি কোন ভাবে আবেদন করতে পারবেন না অর্থাৎ সবকিছু থাকবে কিন্তু আপনি অপশন গুলো খুঁজে পাবেন না।

গুগোল পাবলিশার নিউজে যাওয়ার পর আপনাকে আপনার ব্রাউজারটি ডেক্সটপ মোড করে নিতে হবে যে কোন ব্রাউজার ব্যবহার করতে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা নেই এখানে ব্রাউজার নিয়ে কোন প্রকার সমস্যা হবে তো যে কোন ব্রাউজার ব্যবহার করেন না কেন অবশ্যই ডেক্সটপ মোড করে নিবেন।

সহজে বোঝার জন্য আমি একটি স্ক্রিনশট দিয়ে দিচ্ছি এই স্ক্রিনশটটা দেখিনি তে পারেন আপনার ব্রাউজারের সাইডে যে একটা মেনু বাটন থাকবে সেখানে ক্লিক করবেন এবং এরকম একটি ইন্টারপেজ দেখতে পারবেন সেখানে।

এইরকম ভাবে কিন্তু যেকোন ব্রাউজারে আপনি দেক্সটপ নামের একটি অপশন দেখতে পারবেন এটি অবশ্যই আপনাকে আগেই করে নিতে হবে তারপর কিন্তু আমাদের কাজগুলো শুরু করতে হবে।

তো আপনি যদি এখানে প্রথমবার প্রবেশ করে থাকেন এবং এর আগে যদি এখানে লগইন না করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে সর্বপ্রথম আগে লগইন করতে বলবে তারপরও কিন্তু আপনি পরবর্তী কাজগুলো করতে পারবেন এখানে যে কোন একটি জিমেইল যুক্ত করতে পারেন তবে অবশ্যই এখানে আপনার যে জিমেইল টি যুক্ত করবেন সেটি দ্বারা গুগল সার্চ কনসোল ভেরিফাই থাকতে হবে।

যদি গুগল সার্চ কনসোল ভেরিফাই না থাকে তাহলে সমস্যা হবে অবশ্যই আপনার জিমেইল টি দিয়ে গুগল সার্চ কনসোল ভেরিফিকেশন থাকতে হবে তাহলে ভালো হবে এবং কাজগুলো খুব দ্রুত করতে পারবেন তো এরপর আমাদের কাজ হচ্ছে।

সহজে বোঝার জন্য আমি এখানে ল্যাংগুয়েজটা বাংলা করে নিয়েছি জানো আপনি সহজে বুঝতে পারেন এবং যখন আপনি কাজ করবেন অবশ্যই ভালোভাবে দেখে তারপরে কিন্তু কাজগুলো কিছু সমস্যা হলে কিন্তু পরবর্তী সময়ে গুগোল নিউজ অনুমোদন বা অ্যাপ্রুভ নাও হতে।

তো এখানে দেখতে পারতেছেন ” প্রকাশনা যোগ করুন ” নামের একটি অপশন রয়েছে এখানে ক্লিক করে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি যুক্ত করতে হবে এবং এখান থেকে কিন্তু আমাদের গুগোল নিউজ এপ্লাই এর কাজ শুরু হয়ে যাবে।

যখন এটা ক্লিক করবেন তারপর নিচে থাকা স্ক্রীনশটএর মত আসবে আপনাকে এখানে যা কিছু দিতে হবে তো আমি স্ক্রিনশটে আমার ওয়েবসাইটের জন্য দিয়ে দিচ্ছি অর্থাৎ আমাদের এই ওয়েবসাইটের জন্য কিন্তু আমি গুগল নিউজ আবেদন করতেছি সম্পূর্ণ প্রসেস আপনাদের সাথে শেয়ার করব আমি কিভাবে আমার সাইটের জন্য গুগোল নিউজ আবেদন করলাম।

#

দেখতে পারতাছেন প্রথম যে ঘরটি রয়েছে ফাঁকা বক্স সেখানে দিয়েছি আমাদের ওয়েবসাইটের নাম এবং দ্বিতীয় যে বক্সটি রয়েছে সেই বক্সটিতে আমরা দিয়েছি আমাদের ওয়েবসাইটের (URL) ইউআরএল অর্থাৎ আমাদের ওয়েবসাইটের লিঙ্ক আপনি যখন এপ্লাই করবেন অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের লিংক কপি করে তারপর এখানে পেস্ট করে দিবেন।

এরপর তৃতীয় যে বক্সটি রয়েছে সেখানে দিয়েছি লোকেশন অর্থাৎ আমাদের লোকেশন হচ্ছে বাংলাদেশে আমরা এখানে বাংলাদেশ সিলেক্ট করে দিয়েছি এবং শেষের যে বক্সটি রয়েছে টিক চিহ্ন দিয়ে দিবেন এই বক্সটিতে এরপর লাল চিহ্ন দেওয়া বাটনটি অর্থাৎ পাবলিকেশন যোগ করুন নামের অপশন থাকবে সেটি ক্লিক করে দিবেন।

তাহলে কিন্তু আমাদের প্রথম স্টেপ সম্পন্ন হয়ে যাবে অর্থাৎ গুগল পাবলিশার আমাদের ওয়েবসাইটটি যুক্ত করা হয়ে যাবে এখন এর ভিতর আমাদের কিছু কাজ করতে হবে আমি সম্পূর্ণ আপনাদের সাথে শেয়ার করতেছি অবশ্যই পুরো পোস্টটি করবেন এবং তারপর নিজের ওয়েবসাইটে করার চেষ্টা করবেন।

যখন আপনি আপনার পাবলিকেশন কি এখানে যুক্ত করবেন তারপর কিন্তু এরকম ইন্টারপেজ হয়ে যাবে আপনার সামনে তো এখানে লাল চিহ্ন দেওয়া যে দাগ হয়েছে সেখানে আমাদের সর্বপ্রথম কিছু কাজ করতে হবে অবশ্য এই কাজগুলো জরুরী না হলে কিন্তু আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে গুগোল নিউজ আবেদন করতে পারবেন না।

কাজগুলি করার জন্য এখানে আপনারা ক্লিক করবেন এবং এর পরবর্তী স্টেপ হচ্ছে আমাদের তার ভিতরে থাকা ফরম ফিলাপ করা অর্থাৎ কিছু বক্স রয়েছে সে বক্সগুলো আমাদেরকে পূরণ করতে হবে যেগুলো আপনি নিচের স্ক্রিনশট দেখতে পারবেন।

#

তো এখানে আসার পর প্রথম যে ঘরতে দেখতেছেন এখানে আমাদের আগে থেকে ওয়েবসাইটের নাম কি দেওয়া হয়েছে এবং এরপর বক্সটিতে আমাদেরকে সিলেক্ট করতে হবে আমাদের ওয়েবসাইটের ল্যাঙ্গুয়েজ অর্থাৎ আমাদের ওয়েবসাইটটি কি ভাষা রয়েছে যেকোনো ভাষার ওয়েবসাইট কিন্তু আপনি এখানে যুক্ত করতে পারবেন যদি আপনার ওয়েবসাইটের ভাষা ইংলিশ হয়ে থাকে তাহলে এখানে ইংলিশ সিলেক্ট করে দিবেন।

আর যদি আপনার ওয়েবসাইটের ল্যাংগুয়েজ বাংলা হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই এখান থেকে বাংলা সেলেক্ট করে দিবেন আমাদের ওয়েবসাইটের ল্যাঙ্গুয়েজে বাংলা সেজন্য আমরা এখানে বাংলা সিলেক্ট করে দিলাম এরপর হচ্ছে লোকেশন আমরা কিন্তু সর্বপ্রথম লোকেশন দিয়ে দিয়েছি সেজন্য এখানে কিন্তু অটোমেটিক ভাবে সেই লোকেশন টি আসবে যদি আপনি সেটি চেঞ্জ করতে চান তাহলে কিন্তু চেঞ্জ করতে পারেন।

এরপর হচ্ছে আমাদেরকে এখানে সার্চ কনসোল ভেরিফাই করতে বলতেছে অবশ্যই আপনার এই ইমেইল দিয়ে আপনার সেই ওয়েবসাইট সার্চ কনসোল বেশি থাকতে হবে তা না হলে কিন্তু এখানে ভেরিফিকেশন হবে না আমার এই মেইলটি দিয়ে কিন্তু আমার ওয়েবসাইট সার্চ কনসোল ভেরিফিকেশন করা রয়েছে যদি আপনার ওয়েবসাইটের সাথে এই সার্চ কনসোলটি ভেরিফাই করা থাকে তাহলে ভেরিফাই ক্লিক করলেই কিন্তু অটোমেটিকভাবে ভেরিফাই হয়ে যাবে।

এরপর অপশন দিতে চাচ্ছে আমাদের কাছে এক্সট্রা একটি ওয়েবসাইটের লিংক যদি আপনার অন্য কোন ওয়েবসাইট থাকে তাহলে সেটার লিংক দিতে পারেন অথবা আপনি এই ওয়েবসাইটের লিঙ্ক এখানে দিতে পারেন কোন প্রকার সমস্যা নেই।

তারপরের বক্সের রয়েছে আমাদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য তারা একটি ইমেইল যাচ্ছে অর্থাৎ এখানে একটি ইমেইল যুক্ত করতে হবে তো আমাদের এই ইমেইলটি আমি এখানে যুক্ত করে দেবো এর জন্য ইমেইল যুক্ত করুন অপশনে ক্লিক করার পর ইমেইলটা দেওয়ার পর নিচে দেখতে পারবেন দুটি ফাকা বক্সে রয়েছে অবশ্যই দুটিতে টিক চিহ্ন দিয়ে দিবেন তাহলে আপনার গুগোল নিউজ এর সকল আপডেট ইমেইল করে আপনাকে জানানো হবে।

এরপর কাজ হচ্ছে উপরে যে সেভ নামের অপশনটি রয়েছে লাল চিহ্ন করে দেওয়া রয়েছে দেখতে পারেন সেই অপশনটিতে ক্লিক করে পরবর্তী অপশনে চলে যাবেন অর্থাৎ আমাদের এই পেজ এর কাজ শেষ তারপর দেখতে পারবেন পরবর্তী পেজ আসবে সেখানে আমাদেরকে যেতে হবে এবং সেখানে কিছু কাজ আমাদেরকে করতে হবে।

#

এরপর কাজ হচ্ছে আমাদের এখানে লোগো যুক্ত করতে হবে অর্থাৎ গুগোল নিউজ এর জন্য আমাদের অবশ্যই লোকের প্রয়োজন হবে এখানে মোট তিনটি লোগো যোগ করতে হবে আপনি চাইলে কি লোগো তিনবার আপলোড করতে পারেন যেমনটা আমি আপলোড করেছে কোন প্রকার সমস্যা নেই চাইলে এখানে কিন্তু আপনি এক্সট্রা লোগো যুক্ত করতে পারেন।

অবশ্যই প্রথমে যে লোগোটি আপনি এখানে যুক্ত করবেন সেটি আপনার ওয়েবসাইটে লোকের সাথে মিল থাকতে হবে অর্থাৎ একই কোয়ালিটি এবং একই ডিজাইনের লোগো এখানে আপলোড করার চেষ্টা করবেন কেননা এখানে কিন্তু শুধুমাত্র ওয়েবসাইটের সাথে মিলে এরকম লোগো আপলোড করতে বলা হয়েছে।

লোগো আপলোড করার আগে অবশ্যই একটি বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখবেন সেটি হল লোগোর সাইজ অর্থাৎ আপনি যে লোগোটি এখানে আপলোড করবেন অবশ্যই সেটির সাইজ সঠিক হতে হবে তাহলে কিন্তু আপলোড করতে পারবেন সঠিক সাইজ ছাড়া এখানে আপলোড করার কোন উপায় নেই আপনি যেকোন লোগো আপলোড করতে পারবেন অবশ্যই তার সাইজ যেখানে মিলিত হবে।

” বর্গাকার লোগোর ছবি সংক্রান্ত নির্দেশিকা

ফাইল ফর্ম্যাট
সাজেস্ট করা হচ্ছে: PNG
কাজ করে: JPEG
মাত্রা
সাজেস্ট করা হচ্ছে: ১০০০ x ১০০০ পিক্সেল
প্রয়োজন: ৫১২ x ৫১২ পিক্সেল ”

আপনাকে কিন্তু এরকম ভাবে দিতে হবে এবং যেকোন ধরনের ছবি কিন্তু আপনি আপলোড করতে পারবেন যদি আপনার ফটোটি সাইজ কম বেশি হয়ে যায় এক্ষেত্রে আমি আপনি যেকোনো ধরনের অ্যাপ্লিকেশন অথবা ওয়েবসাইট থেকে আপনার লোগোর সাইজ টা ঠিক করে নিতে পারেন।

এরপর উপরে সেভ নামে অপশনটি রয়েছে সেখানে ক্লিক করে দিলে কিন্তু নবডি সেভ হয়ে যাবে এবং এই অপশনের কাজ শেষ হয়ে যাবে অবশ্যই লোগোটি আপলোড করার আগে খুব ভালোভাবে দেখে তারপর লোগোটি আপলোড করবেন।

তো সেভ হওয়ার পর এখান থেকে ব্যাক চলে যাবেন অর্থাৎ পাবলিশার হোমপেজে চলে আসবেন।

তো হোমপেজে চলে আসার পর এরকম দেখতে পারবেন তারপরে আমি যে লাল চিহ্ন দিয়ে দিয়েছি এখানে ক্লিক করবেন তাহলে কিন্তু পরবর্তী অপশনটি দেখতে পারবেন তো এখানে আসার পর এটি ক্লিক করবেন এরপর আপনাকে যা করতে হবে।

দেখতে পারতেছেন লাল চিহ্ন দেওয়া অপশনটি সম্পাদনা করুন অথবা এখানে english-এ থাকতে পারে এডিট করুন তো যে অপশনটা থাকুক না কেন এখানে আপনাদের ক্লিক করতে হবে এবং তারপর যে কাজগুলো রয়েছে সেই কাজগুলো সম্পন্ন করতে হবে তাহলে কিন্তু আমরা গুগোল নিউজ এর জন্য আবেদন করতে পারবো।

এরপর এরকম একটি পেজ আসবে এখানে আমাদের কিছু কাজ করতে হবে তাহলে কিন্তু পরবর্তী কাজগুলো আমরা করতে পারবো তো সর্বপ্রথম যে বক্সটি রয়েছে এখানে আপনার ওয়েবসাইট সম্বন্ধে কিছু লিখতে হবে আমি আমার সম্বন্ধে কিছু এখানে লিখে দিলাম আপনার ওয়েবসাইটে সম্পর্কিত আপনি সেই সম্পর্কে কিছু তথ্য এখানে শেয়ার করবেন তাদের সাথে যেন তারা এইটুকু দেখে বুঝতে পারে আপনার ওয়েবসাইটটি কি নিয়ে তৈরি।

এবং পরবর্তীতে অপশনটি রয়েছে ক্যাটাগরি অর্থাৎ বিভাগ আপনার ওয়েবসাইটটি কি রিলেটিভ এখানে অনেকগুলো বিষয় দেওয়া রয়েছে আপনার ওয়েবসাইটটি যদি শপিং বা অন্যান্য কোন ক্যাটাগরির হয়ে থাকে তাহলে আপনি সেখান থেকে সিলেক্ট করে দিবেন যেহেতু আমাদের ওয়েবসাইটটি প্রযুক্তি বা টেকনোলজি সম্পর্কিত সেজন্য আমি এখানে টেকনোলজি বা প্রযুক্তি দিয়ে দিলাম।

অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটটি যে রিলেটিভ রিলেটিভিটি ক্যাটাগরি এখানে সেলেক্ট করে দেবেন কোন প্রকার সমস্যা হবে না এবং নিচে যে দুটি বক্স দেখতেছেন এ দুটি বক্সে আপনাকে কিছু করতে হবে না সবার নিচে যে পরবর্তী অপশনটি রয়েছে সেখানে ক্লিক করবেন লাল দাগ দেওয়া রয়েছে খুব সহজে বুঝানোর জন্য চেষ্টা করতেছে কেন আপনি স্ক্রীনশট গুলো দেখে বুঝে যান।

#

তো এখন আমাদের এখানে ফিড যুক্ত করতে হবে যার মাধ্যমে কিন্তু আমাদের ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো গুগোল নিউজ আসবে এর জন্য আমি দেখান লাল চিহ্ন দিয়েছি আপনি এখানে ক্লিক করার পর Feed এই অপশনটি রয়েছে এখানে ক্লিক করে আপনাকে ফিড যুক্ত করতে হবে খুব সহজে কিন্তু আপনি এখানে ফিড যুক্ত করতে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই আমি দেখিয়ে দিচ্ছি কিভাবে এখানে আপনি ফিড যুক্ত করবেন।

#

যদি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু কোন প্রকার লিঙ্ক তৈরি ছাড়াই এখানে আপনি ফিড যুক্ত করতে পারবেন যেমনটা স্ক্রিনশটে দেখতে পারতেছেন আর যদি আপনার অন্যান্য ওয়েবসাইট হয়ে থাকে যেমন ব্লগার ওয়েবসাইট হলে আপনাকে ফিড জেনারেট করতে হবে অর্থাৎ আপনাকে নতুন করে তৈরি করতে হবে একটি ফিড।

যদি আপনার ব্লগার ওয়েবসাইট হয়ে থাকে এক্ষেত্রে আপনাকে যা যা করতে হবে আমি বলে দিচ্ছি আপনারা ঠিক এইভাবে কাজ করার চেষ্টা করবেন সর্বপ্রথম চলে যাবেন গুগলে এবং গিয়ে সার্চ করবেন Feed burner পর দেখতে পারবেন সর্বপ্রথম যে ওয়েবসাইটটি আসবে সে ওয়েবসাইটে আপনি প্রবেশ করবেন এবং সেখানে আপনার একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট চাইতে পারে যদি আপনার কাছে জিমেইল অ্যাকাউন্ট চায় তাহলে অবশ্যই লগইন করে নেবেন।

চিন্তার কোন কারণ নেই এটা কিন্তু গুগলের নিজস্ব সাইট এখানে আপনি জিমেইল লগইন করতে পারবেন নিশ্চিন্তে তো নিজে একটি ফাঁকা বক্স দেখতে পারবেন সেখানে আপনার ব্লগার ওয়েবসাইটের লিংক দিবেন এবং সেখানে কিন্তু ভালোভাবে বলে দেওয়া রয়েছে কিভাবে আপনি একই ফিড তৈরি করবেন step-by-step।

তো আপনার যদি ফিড তৈরি করা হয়ে যায় তারপর কিন্তু আপনি সেখান থেকে একটি লিঙ্ক পাবেন যেটি উপরে যে আমি স্ক্রিনশটটি দিলাম যেখানে আমি tecnicalbd.com/rss দিয়েছি আপনি ঠিক এই বক্সে আপনার সেই লিংকটি পেস্ট করে দিবেন এবং স্ক্রিনশট এর প্রথম যে বক্সটি রয়েছে এখানে যেকোনো একটি নাম দিলেই কিন্তু হয়ে যাবে কোন প্রকার সমস্যা নেই।

উপরে-নিচে দেখতে পারতেছেন যোগ করুন সেই অপশনটিতে ক্লিক করে আপনার ফিড যুক্ত করে নিবেন এখন আমাদের পরবর্তী কাজ হচ্ছে নিচে যে একটি অপশন রয়েছে দেখতে পারতেছেন যে পরবর্তী এখানে ক্লিক করে আমাদের নেক্সট স্টেপ পূরণ করতে হবে তো আমরা এ ক্লিক দেওয়ার পর আসতেছি।

#

এখানে কিন্তু এখনো আবেদন করার জন্য সমস্ত বিষয় প্রস্তুত নয় এর জন্য এখানে আরও দুটি বিষয় পর্যালোচনা করতে হবে যেগুলো করার পরে কিন্তু আমাদের ওয়েবসাইটটি গুগোল নিউজ এর জন্য আবেদন করতে পারব।

প্রথম যে অপশনটি রয়েছে সেটি দেখিয়ে দিচ্ছি একটু পর দ্বিতীয় যে অপশন রয়েছে আমাদের শর্তাবলী মেনে চলুন এরকম যে অপশনটি রয়েছে পর্যালোচনা করুন সেখানে আপনি ক্লিক করবেন এবং আপনার এখানে কিছু ইনফরমেশন সাবমিট করতে হবে যেমনটা আমি নিচে স্ক্রিনশট দিয়ে দিচ্ছি আপনি কিন্তু এখান থেকে আপনার ইনফরমেশন গুলো দিতে পারেন।

#

দ্বিতীয় অপশন টি ক্লিক করার পর এই রকম একটি পেজ আসবে সেখানে সর্বপ্রথম যে বক্সটি রয়েছে সেখানে আপনি আপনার নাম কি দিয়ে দিবেন এবং পরবর্তীতে বক্সটি রয়েছে সেখানে একটি ইমেইল এড্রেস দিয়ে দিবেন আমি আমার একটি ইমেইল এড্রেস এখানে দিয়ে দিলাম এবং পরবর্তীতে বক্সটি রয়েছে সেখানে আপনার মন মত করে একটি টাইটেল দিয়ে দিবেন ও আপনি কোথায় কাজ করেন সেটি এখানে দিয়ে দিবেন।

এরপরে নিচে যে রয়েছে জমা দিন অপশন সেখানে ক্লিক করে আপনি এইগুলো সাবমিট করে দেবে তাহলে কিন্তু এখানে সাবমিট হয়ে যাবে এবং আমাদের এই কাজটি সম্পন্ন হয়ে যাবে।

এখন আমাদের শুধুমাত্র বাকি রয়েছে কনটেন্ট রিভিউ অর্থাৎ এখনো কিন্তু আমাদের এখানে প্রায় ভিউতে কন্টেন আসেনি আমাদেরকে এখন এখানে কনটেন্ট আনতে হবে খুব দ্রুত এর জন্য আমাদেরকে যা যা করতে হবে দেখিয়ে দিচ্ছি।

প্রথমে চলে যাবেন পাবলিশারের হোমপেজে এবং তারপর নিচে দেখতে পারবেন কনটেন্ট লেভেল নামের একটি অপশন রয়েছে সেখানে আপনাকে ক্লিক করতে হবে ও সেখানে আপনাকে ক্যাটাগরি যুক্ত করতে হবে ভালভাবে বোঝার জন্য স্ক্রিনশটটি দেখুন আশা করি বুঝে যাবেন।

#

উপরে যে স্ক্রিনশটটি দেখতেছেন এইভাবে আপনাকে কনটেন্ট level- যুক্ত করতে হবে এটি কিভাবে করবেন দিচ্ছি প্রথমে হোমপেজে যাওয়ার পর কনটেন্ট লেভেল নামের যে অপশনটি রয়েছে সেখানে ক্লিক করবেন এবং এর পরবর্তী কাজ হচ্ছে প্রথমে একটি সিলেক্ট বক্স আসবে সেখান থেকে আপনি ব্লগ সিলেক্ট করে দিবেন।

এবং তার নিচে আরো একটি কাজ রয়েছে সেটি হচ্ছে প্রথম যে বক্সটি রয়েছে সেখানে দিবেন আপনার ওয়েবসাইটের ক্যাটাগরি লিংক যেকোনো ওয়েবসাইট হোক না কেন এখানে আপনি দিবেন ক্যাটাগরির লিংক এবং নিচে থাকা বক্সটিতে ব্লগ সিলেক্ট করে দিয়ে যুক্ত করে দিবেন এভাবে আপনার ওয়েবসাইটে থাকা যতগুলি ক্যাটাগরি রয়েছে সব করলো এখানে যুক্ত করে দিবেন।

তোমাদের কন্টেন্টগুলি এখানে শো করতে অর্থাৎ ওয়েবসাইটে যে কন্টেন্টগুলি রয়েছে সেগুলো যখন এখানে আসবে তখন ঐ কিন্তু আমরা গুগোল নিউজ এর জন্য আবেদন করতে পারব তাছাড়া কিন্তু আমরা আবেদন করতে পারবো না এর জন্য আমাদেরকে এখানে 10 থেকে 15 মিনিট অপেক্ষা করতে হবে তারপরে কিন্তু এখানে আমাদের কন্টেন্টগুলি দেখতে পারবো।

তো দেখতেই পারতেছেন এখানে আমার কনটেন্ট এসে গিয়েছে এখন আমি কিন্তু নিউজ আবেদন করতে পারবো এর জন্য দেখান যে পাবলিশ অপশনটি যে রয়েছে উপরে লাল চিহ্ন দেওয়া সেটি ক্লিক করে দিলেই কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি রিভিউতে চলে যাবে অর্থাৎ গুগল আপনার ওয়েবসাইট রিভিউ করে কিন্তু অনুমোদন করে দেবে।

সাধারণত এখানে বলা থেকে 14 দিন সময় লাগতে পারে কিন্তু এটি পাঁচ থেকে সাত দিনের ভিতরে হয়ে যায় যদি আপনার ওয়েবসাইটের সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে থাকে।

আশা করি বুঝতে পেরেছেন কিভাবে গুগোল নিউজ আবেদন করবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে এবং উপরে তো বলেই দিয়েছে কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটে গুগোল নিউজ থেকে ট্রাফিক আনবেন।

শেষ কথা

আশা করি আপনার কাছে আমাদের আজকের পোস্টটি ভাল লেগেছে কেননা আজকে আমরা খুবই দারুণ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি এবং কারো যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয়ে থাকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দেবেন যে বিষয়টি আপনার বুঝতে সমস্যা হবে এছাড়া আমাদের ওয়েবসাইটের এসইও নিয়ে আরো একটি পোস্ট পাবলিসিটি করা হয়েছে সেটি দেখে নিতে পারেন।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন ধন্যবাদ সবাইকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.