মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করুন। এখন আপনি নিজেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করুন ২০২২

National with mobile number Ways to get an identity card
হ্যালো বন্ধুরা আসসালামু আলাইকুম কেমন আছেন সবাই আশা করি সকলে ভালোই আছেন ইনশাআল্লাহ আমিও খুব ভালো রয়েছি তাই আজকে আপনাদের সামনে আরও একটি নতুন আর্টিকেল নিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে হাজির হলাম আমাদের আজকের আর্টিকেল এ বিষয়টি হচ্ছে।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করার উপায় নিয়ে আমাদের আজকের পোস্টটি কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ অবশ্যই পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন আশা করি এখান থেকে আপনি অবশ্যই কিছুটা হলেও শিখতে পারবেন কিভাবে একটি মোবাইল নাম্বার দিয়ে তার রেজিস্ট্রেশন এনআইডি কার্ড বের করতে হয়।

আমাদের বাংলাদেশের নাগরিকত্ব প্রমাণ করার জন্য অবশ্যই আমাদের প্রয়োজন হয়ে থাকে এনআইডি বা জাতীয় ন্যাশনাল স্মার্ট কার্ড বর্তমান সময়ে স্মার্ট কার্ড টি জনপ্রিয় রয়েছে এবং এটি কিন্তু ২০১৮ সালে রূপান্তরিত করা হয়েছে এর আগে ছিল সকলের কাছে শুধুমাত্র ন্যাশনাল আইডি কার্ড কিন্তু বর্তমান সময়ে টিকে রূপান্তর করা হয়েছে পুরনো ভোটারদের জন্য স্মার্ট কার্ড।

তবে আপনি চাইলে কিন্তু আপনার পুরনো কার্ড দিয়ে খুব সহজেই সকল ধরনের কাজ করতে পারবেন এতে কোন প্রকার সমস্যা হবে না কেননা আপনার পুরনো এনআইডি কার্ড অর্থাৎ ন্যাশনাল আইডি কার্ডটি এখনো কিন্তু একটিভ রয়েছে যেটা দিয়ে সকল ধরনের কাজ করা এখনো সম্ভব।

আমাদের বিভিন্ন সময় অবশ্যই এই কার্ডটি প্রয়োজন হয় বাংলাদেশের 18 বছর অধিকার প্রদান করা হয় সকল নারী এবং পুরুষের জন্য কিন্তু এই কার্ড বাংলাদেশের নাগরিকত্ব প্রমাণ করার জন্য বা বিভিন্ন ধরনের করার ক্ষেত্রে আমাদের এই কার্ড প্রয়োজন হয়ে থাকে এই কার্ড ছাড়া কিন্তু আমরা সেই কাজগুলো কোন ভাবে সম্পন্ন করতে পারবোনা।

যদি আপনার 18 বছর হয়ে থাকে বা আপনার বয়স যদি 2007 সালের এর নিচে হয়ে থাকে তাহলে এখন আপনার পরিষদ বা গ্রাম নাম্বারের সাথে যোগাযোগ করুন কেননা বর্তমান সময়ে কিন্তু 2007 সাল এর নিচে যত মানুষ হয়েছে ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের জন্য এনআইডি কার্ডের নিবন্ধন চলতেছে।

আপনার বয়স যদি এর মধ্যে হয়ে থাকে তাহলে এখনি আপনি যোগাযোগ করুন আপনার নিকটস্থ মেম্বার বা পরিষদ ইউনিয়নে যেখান থেকে আপনি আপনার ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করতে পারবে এটি আবেদন করার সর্বনিম্ন 2 বছর পর আপনি আপনার হাতে পেয়ে যাবেন কার্ডটি।

এই বিষয়ে আপনি খুবই গুরুত্ব দিবেন কেননা এটি জানা কিন্তু আপনার বাংলাদেশের নাগরিকত্ব প্রমাণ করা হবে এবং আরও বিভিন্ন ধরনের কাজ করতে গেলে আপনার এই কার্ড অবশ্যই প্রয়োজন হবে যেটি বাধ্যতামূলক এই বিষয়ে কথা বলব না আমাদের আজকের টপিক নিয়ে মূল আলোচনায় চলে যাওয়া যাক।

মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করা

আপনি কিন্তু মোবাইল নাম্বার দিয়ে বিভিন্ন উপায়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন খুব সহজে এখানে অনেকগুলো উপায় রয়েছে যে উপায়গুলো অবলম্বন করে যে কেউ মোবাইল নাম্বার দিয়ে এনআইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন।

অবশ্যই কাজগুলো খুব ভালোভাবে করতে হবে তাহলে কিন্তু আপনি মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন এখানে অনেকগুলো উপায় রয়েছে আপনি যেকোন উপায়ে চেষ্টা করে দেখতে পারেন আশা করি কোন না কোন উপায়ে আপনার কাজে আসবে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করার জন্য।

অনেক সময় আমাদের মোবাইল এ অপরিচিত নাম্বার থেকে কল আসে যে কল গুলো ধরার পর আমরা বিরক্ত বোধ করি কেননা অনেক সময় কিন্তু মানুষ ইচ্ছে করেই আমাদের কে বিরক্ত করার জন্য কল দিয়ে থাকে তো আপনি চাইলে কিন্তু তার ঠিকানা বা তার লোকেশন বের করতে পারবেন খুব সহজেই সেই মোবাইল নাম্বারটি সাহায্যে।

আপনি কেন মোবাইল নাম্বার এর জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন একটি কোড ডায়াল করে অথবা আরও বিভিন্ন ধরনের উপায় রয়েছে সেগুলো অবলম্বন করে আপনি যে কোন মোবাইল নাম্বার এর রেজিস্ট্রেশন করা জাতীয় পরিচয় পত্রটি বের করতে পারবেন।

প্রথমে আলোচনা করব কিভাবে কোড ডায়াল মাধ্যমে জাতীয় পরিচয় পত্র অনুসন্ধান করবেন এটা কিন্তু আপনি মোবাইল ফোনসহ সকল ধরনের ডিভাইস থেকে করতে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা হবে না খুবই সহজে এই কাজটি সহজেই করতে পারবেন তবে সম্পূর্ণ প্রসেস দেখার পর।

এই প্রসেসটি আপনি একটি সাধারন বাটন মোবাইল ফোন দিয়ে করতে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা নেই এটি শুধুমাত্র কোড ডায়াল এর মাধ্যমে করা যায় যেটি দ্বারা সবচেয়ে সহজ হবে আপনার এই মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা এনআইডি কার্ড বের করার ক্ষেত্রে।

USSD কোড ডায়াল করার মাধ্যমে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করুন

এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করে আপনার মোবাইল ফোনের সিমটির স্মার্ট কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন যদি কখনো আপনি কারো একটি সিম করে পান তাহলে কিন্তু আপনি এই কাজটি করতে পারবেন খুব সহজে যার পরবর্তী সিমের মালিকের কাছে আপনি সিমটি পৌঁছে দিতে পারবেন এই জন্য এই কাজটি অবলম্বন করতে হবে আপনাকে তাহলে সবচেয়ে সহজ ভাবে।

যে সিম দিয়ে আপনি সেই সিম টি রেজিস্ট্রেশন স্মার্ট কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে চাচ্ছেন অবশ্যই শেষে আপনার ফোনে থাকা লাগবে তাহলে আপনি সেই নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন খুব সহজে শুধুমাত্র একটি কোড ডায়াল এর মাধ্যমে কোড আমি দিয়ে দিচ্ছি।

সর্বপ্রথম আপনি চলে যাবেন আপনার মোবাইল ফোনের কল কিবোর্ড অপশন এ এবং সেখানে ডায়াল করবেন *১৬০০*২# এটি এর কিছুক্ষণের ভেতরে কিন্তু আপনাকে একটি কনফার্ম এসএমএস পাঠানো হবে যেখানে আপনি দেখতে পারবেন আপনার সিমটি কোন স্মার্ট কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে।

এই পদ্ধতি অবলম্বন করে আপনি কিন্তু জাতীয় পরিচয় পত্র বের করতে পারবেন মোবাইল নাম্বার দিয়ে খুব সহজেই যেটি সকলে পারবেন কোন প্রকার সমস্যা হবে না এটি বের করতে অবশ্যই কিছুক্ষণ ধৈর্য সহকারে অপেক্ষা করবেন এসএমএসটি জন্য কেননা অনেক সময় কিন্তু সাথে সাথে এসএমএস আসে না কিছুক্ষণ সময় ওয়েট করলে আপনি এসএমএস পেয়ে যাবেন আশা করি।

এখন আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিভাবে আপনি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করবেন খুব সহজে এটাই কিন্তু খুবই জনপ্রিয় একটি মাধ্যম যার মাধ্যমে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করার সহজ উপায় বলা হয়ে থাকে যে উপায়টি অবলম্বন করে সকলে হয়তো এইখান থেকে তাদের জাতীয় পরিচয় পত্র বিস্তারিতভাবে সংরক্ষণ করতে পারে।

আপনিও কিন্তু পারবেন এখান থেকে খুব সহজে জাতীয় পরিচয় পত্র সম্পর্কে সবকিছু খুব সুন্দর ভাবে সংরক্ষন করতে কেননা এখানে কিন্তু যখন আপনি কোন একটি সিম ক্রয় করেন তখন আপনাকে কিন্তু একটি কার্ড তাদেরকে প্রদান করতে হয় যে কার্ডের নাম্বার নাম ও বিশেষ কিছু তথ্য তারা সংরক্ষণ করে থাকে সেই তথ্যভান্ডার কিন্তু এই ওয়েবসাইটটিতে রয়েছে যেখানে খুব সহজে তথ্য গুলো পাওয়া যাবে।

ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয় পত্র বের করুন।

আপনি কিন্তু এই উপায়টি অবলম্বন করে খুব সহজেই আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র টি বের করতে পারবেন কোন মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে একদম সহজ ভাবে এই উপায়টি অবলম্বন করে সকলে কিন্তু দেখতে পারবেন।

এবং এখান থেকে সকল বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন যেমনঃ সিমটি কতদিন আগে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে আরও বিভিন্ন ধরনের বিষয় কিন্তু এখানে দেখতে পারবেন অবশ্যই আপনার একটি স্মার্ট কার্ড বা ন্যাশনাল আইডি কার্ড প্রয়োজন হবে এখানে দেখার জন্য কেননা অবশ্যই এখানে সর্বপ্রথম আপনাকে আগে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

তাহলে কিন্তু পরবর্তী সময় আপনি এখান থেকে সকল ধরনের কার্যক্রম করতে পারবেন ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে স্মার্ট কার্ড বা নেশনাল আইডি কার্ড বের করতে পারবেন খুব সহজেই অবশ্যই আপনাকে সর্বপ্রথম একটি কার্ড দিয়ে সেটি স্মার্ট কার্ড হোক অথবা নেশনাল আইডি কার্ড যেকোনো একটি কার্ড দিয়ে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে সর্বপ্রথম তার পরবর্তী সময় আমাদের পরবর্তী কাজগুলো করতে হবে।

এজন্য আপনি সর্বপ্রথম নিচের লিংকটিতে প্রবেশ করবেন এরপর এখানে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে অবশ্যই আপনার এখানে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রয়োজন হবে একটি ন্যাশনাল আইডি কার্ড অথবা একটি স্মার্ট আইডি কার্ড অর্থাৎ আপনার একটি জাতীয় পরিচয় পত্র প্রয়োজন হবে এখানে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য।

https://services.nidw.gov.bd/nid-pub/

এখানে আপনি রেজিস্ট্রেশন করতে হবে আমি বলে দিচ্ছি আপনাকে এখানে কি কি দিতে হবে অনেকেই হয়তো জানেন না যার কারণে এখানে রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন না এবং পরবর্তী কাজগুলো করতে পারেন না এছাড়াও এখান থেকে কিন্তু আপনি অনেক ধরনের সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবেন যে সার্ভিস গুলো রেজিস্ট্রেশন করার পর দেখতে পারবে

গভমেন্ট তথ্যগুলি আমাদের বিভিন্ন সময়ের প্রয়োজন হয়ে থাকে এখান থেকে কিন্তু আপনি অনেক ধরনের তথ্য সংরক্ষণ করতে পারবেন যে তথ্যগুলো আপনার খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এই তথ্য গুলোর মাধ্যমে অনেক কাজ করা সম্ভব আমাদের বিভিন্ন সময়ে গুলো প্রয়োজন হয়ে থাকে আপনি যদি একবার রেজিস্ট্রেশন করেন তাহলে কিন্তু আপনার পরবর্তী পরিবেশন করতে হবে না শুধুমাত্র লগইন করলেই হবে।

১.বক্স এখানে প্রথম যে বক্সটি দেখতে পারতেছেন ওপর আমি স্ক্রিনশটটি দিয়েছি প্রথম বক্সের আমাদেরকে দিতে হবে জাতীয় পরিচয় পত্র এর নাম্বারটি অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্র এর নিচের দিকে যে কি নাম্বার রয়েছে 12 থেকে 15 সংখ্যার সেই নাম্বারটা এখানে আমাদেরকে প্রবেশ করাতে হবে এটি হচ্ছে আমাদের জাতীয় পরিচয় পত্র এর নাম্বার।

২.বক্স এরপরে নিচে যে ছোট একটি বক্স রয়েছে সেখানে আমাদেরকে দিতে হবে জাতীয় পরিচয় পত্রে যে জন্মদিনটি দেওয়া রয়েছে অবশেষে জন্মদিনটি এখানে দিতে হবে তা না হলে কিন্তু আপনি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন না কেননা এখানে একদম সঠিক তথ্য পাওয়ার পর আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হবে তাছাড়া কিন্তু কোন উপায় নেই এখানে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার।

৩.বক্স এখানে আমাদেরকে দিতে হবে জাতীয় পরিচয় পত্র আমাদের যে মাস অর্থাৎ আমাদের এখানে যেকে তারিখ রয়েছে আমি কি মাসে জন্মেছি একটি তারিখ কিন্তু এখানে রয়েছে যেটি আমাদেরকে এই বক্সটিতে পূরণ করতে হবে অবশ্যই সঠিক ভাবে বক্স পূরণ করবেন তা না হলে কিন্তু কোনভাবে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হবে না।

৪.বক্স এরপর যে বক্সটি রয়েছে সেখানে আমাদেরকে জন্ম সাল দিতে হবে অর্থাৎ আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র জন্ম সার্টিফিকেট জন্ম সাল কি সঠিকভাবে এখানে সাবমিট করে দিবেন তাহলে কিন্তু একদম সঠিক ভাবে হয়ে যাবে অবশ্যই ভালোভাবে তিনটি উবক্স সুন্দর করে সাবমিট করবেন কোন প্রকার ভুলত্রুটি যেন না থাকে।

৫.বক্স এরপর একটি বক্স দেখতে পারতেছেন এবং ওপরের ঝাপসা লেখা রয়েছে ঝাপসা কি লেখা রয়েছে অথবা কিছু অক্ষর সংখ্যা লেখা থাকতে পারে আপনি এই সংখ্যা বা অক্ষরগুলি সুন্দরভাবে দেখে নিচে ফাকা বক্সে লিখবেন পর আমাদের কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য নিচে থাকা সাবমিট বাটন টি ক্লিক করে দিলে কিন্তু আমাদের কাজ কমপ্লিট হয়ে যাবে এবং আমাদের রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট হয়ে যাবে

আশাকরি বুঝতে পেরেছেন কিভাবে মোবাইল নাম্বার দিয়ে জাতীয় পরিচয় পত্র খুঁজে বের করবেন যদি পোস্টে আপনার কাছে ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং পরবর্তী পোস্ট পাওয়ার জন্য অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইট প্রতিদিন ভিজিট করবেন ধন্যবাদ সবাইকে আমাদের সাথে থাকার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.